সহজেই খুজে বের করুন নিকটস্থ দ্রুতগতির পাবলিক ওয়াইফাই জোন!

আপনি যখন ভ্রমণ করবেন, পাবলিক ওয়াইফাই ব্যবহারের সুযোগ থাকতে পারে যেমন  বিমানবন্দরে। এখানে পাবলিক ওয়াইফাই দ্রুততম গতিতে ব্যবহারের একটি টিপস উল্লেখ করা হল। তাই আশা করি সবার ভাল লাগবে।

আপনি পাবলিক ওয়াইফাই নেটওয়ার্ক কে দ্রুততর করতে পারবেন না তবে একটি উপায় আছে যার মাধ্যমে সেখান থেকেও আপনি বেশ ভাল গতি(speed) নিশ্চিত করতে পারবেন।

খুজে বের করুন নিকটস্থ দ্রুতগতির পাবলিক ওয়াইফাই

বেশিরভাগ বিমানবন্দরে বৃহৎ ওয়াইফাই(Wi-Fi ) নেটওয়ার্ক আছে, যা ম্যাশ নেটওয়ার্ক(mesh network) নামে পরিচিত যা অনেকগুলি এক্সেস পয়েন্ট( access points) দ্বারা গঠিত। এই নেটওয়ার্কিং-এর পুরো বিষয়টিকে ছোট ছোট ওয়াইফাই স্যাটেলাইটের মত চিন্তা করা যেতে পারে যা বিমানবন্দরের রাউটারের সংকেতের একটি অংশ বহন করে। যখন আপনি বিমানবন্দরে প্রথমবারের মত ওয়াইফাই সংযোগ করবেন, আপনি সম্ভবত কোন এক্সেস পয়েন্টের সাথে কানেক্ট হবেন যা আপনাকে বর্তমান অবস্থান অনুযায়ী সবচেয়ে বেশি সিগনাল দিবে। যখন আপনি নতুন কোন এলাকাতে হাঁটবেন  যা আপনার কানেক্ট করা এক্সেস পয়েন্ট থেকে অনেক দূরে, এটা আপনার ডিভাইসের জন্য জরুরী নয় যে তখন এটি কোন একটি নতুন ও নিকটবর্তী এক্সেস পয়েন্টের সাথে সংযোগ গ্রহণ করবে। সেক্ষেত্রে সেটির স্পীড কম হবে এমনকি ওয়াইফাই কানেকশনের অসংযোগ(disconnection) ঘটবে।

কাজেই, যখন আপনার এক স্থান থেকে অন্য স্থানে যেতে হবে, যদি আপনি মনে করেন আপনার ইন্টারনেট পরিস্কারভাবে স্লো কাজ করছে, ওয়াইফাই সংযোগটি পুনঃপ্রতিষ্ঠা করাটাই আপনার জন্য বিকল্প সেরা উপায় হবে। এটা খুবই সহজ,  মাত্র কয়েক সেকেন্ডের জন্য আপনার ডিভাইসের এয়ারপ্লেন মোড(airplane mode) চালু করুন অতঃপর এয়ারপ্লেন মোড বন্ধ করুন(turn off)। এবার আপনার ডিভাইসটি সবচেয়ে ভাল এক্সেস পয়েন্ট খুঁজবে আপনার অবস্থান অনুসারে। পরবর্তীতে ওয়াইফাই সংযোগ আর দরকার না পড়লে ইন্টারনেটের জন্য তাহলে আর আশেপাশে ঘোরাফেরা করার দরকার নেই।

সহজ ভাষায়…

  1. আপনার ডিভাইসের ওয়াইফাই চালু করুন।
  2. যদি ওয়াইফাই সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয় কিংবা এর গতি কম থাকে তবে এয়ারপ্লেন মোড চালু করুন।
  3. কিছুক্ষন পর এয়ারপ্লেন মোড বন্ধ করুন।
  4. আবার আপনার বর্তমান অবস্থানে আবার পূর্বের মত সবচেয়ে গতিময় সংযোগটির সাথে কানেক্ট হওন।