রিয়েল আইপি কি এবং আপনার আইপিটি রিয়েল কিনা তা বুঝার উপায়!

ইন্টারনেট কানেকশন পেতে দেশের শহরাঞ্চলের মানুষের প্রথম পছন্দ উচ্চগতির ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট। আর বিভিন্ন রাজনৈতিক কারনে শহরের অনেক এলাকায়ই বড় কোন আইএসপি প্রবেশ করতে পারে না। তাই বাধ্য হয়ে অনেকেই লোকাল আইএসপি থেকে লাইন নেয়। আর সমস্যাটা শুরু তখন থেকেই। আমার মত অনেকেই আছেন যাদের রিয়েল স্ট্যাটিক আইপি প্রয়োজন। অনেক সময় দেখা যায় লোকাল আইএসপি গুলো সাধারণ গ্রাহকদের রিয়েল আইপি নিয়ে বিভ্রান্ত করে। অনেক সময় প্রতারনাও করে। তাই অনেকের মনেই একটি প্রশ্ন ঘুরপাক খায় “আমার আইপিটি রিয়েল কিনা কিভাবে বুঝবো?”। উত্তর খুবই সহজ। তার আগে চলুন জেনে নেই কিছু তথ্য।

রিয়েল আইপি কিঃ

অনেকেরই ধারণা নেই রিয়েল আইপি কি। এর অবশ্য অনেক কারণ। আমরা সেদিকে আলোচনার মোড় ঘুরাবো না। যেটা জানার চলুন সেটাই জেনে নেই।  যখন কোন আইএসপি থেকে কানেকশন নিবেন তখন ২ ভাবে নেয়া যায়। একটি হল আইপি দিয়ে আরও একটি হল পিপিওই বা ডায়াল আপ কানেকশন। আইএসপি যখন আপনাকে ইন্টারনেটে কানেক্ট হওার জন্য একটি আইপি, গেটওয়ে ও সাবনেট মাস্ক দেয় তখন আইপিটি বেশিরভাগ সময়ই ১৯২.১৬৮ দিয়ে শুরু হয়। অন্যরকমও হতে পারে। এটি শুধুমাত্র আপনাকে ইন্টারনেট সংযোগ দেয়ার জন্যই ব্যবহার করা হয় যার তথ্য আইএসপির রাউটারে সংরক্ষিত থাকে। বাস্তবে এই আইপির কোন ভেলু বা অস্তিত্য নেই।

আর রিয়েল আইপি হল সেই আইপি যার অস্তিত্য বাস্তবে আছে এবং পৃথিবীর সব ডিএনএস সার্ভারে এর পাব্লিক ইনফরমেশন গুলো থাকবে। যেমনঃ আইপিটি কোন আইএসপির অন্তর্গত, লোকেশন কথায় ইত্যাদি। যেমনঃ এই www.iplocation.net ওয়েবসাইটে গিয়ে যেকোন আইপির পাব্লিক ইনফরমেশন গুলো পাওয়া যায়। আপনি আপনার পিসিতে কোন অ্যাপ্লিকেশন হোস্ট করলে তা ওই আইপি দিয়ে পৃথিবীর যেকোনো প্রান্ত থেকে এক্সেস করা যাবে। এমনকি আপনার নরমাল ডেক্সটপ পিসিতে আপনি চাইলে ওয়েবসাইটও হোস্ট করতে পারবেন। আসলে রিয়েল আইপি বলতে আমরা যা বুঝি তাকে ডেডিকেটেড পাব্লিক আইপি বললেও ভুল হবে না। যারা লিনোদ, ডিজিটাল ওশিয়ান বা অন্য যেকোনো প্রভাইডার থেকে ভিপিএস সার্ভার ব্যবহার করেন তাদেরকে সবসময়ই একটি আইপি এড্রেস দেয়া হয়। যাকে আমরা ডেডিকেটেড আইপি হিসেবেই চিনি। এই আইপিটিকেই লোকাল আইএসপি রিয়েল আইপি বলে থাকে।

আপনার আইপিটি রিয়েল কিনা কিভাবে বুঝবেন?

উত্তর খুবই সহজ। এর জন্য আপনাকে নিচের স্টেপ গুলো ফলো করতে হবে –

১ম ধাপঃ পাব্লিক আইপি চেক

প্রথমেই গুগলে My IP লিখে সার্চ করেন। দেখবেন আপনার পাব্লিক আইপি শো করতেছে। অথবা আপনি সরাসরি whatismyipaddress.com এই ওয়েবসাইট ভিজিট করতে পারেন। তাহলে আপনার পাব্লিক আইপি এড্রেসটি দেখতে পাবেন।

whatismy ip

এখন একটু খেয়াল করুন আইএসপি আপনাকে যে আইপি এড্রেসটি দিছে সেটা আর এই পাব্লিক আইপি একই কিনা। যদি একই হয়, তাহলে আপনি মোটামুটি নিশ্চিত হতে পারেন আপনাকে রিয়েল আইপিই দেয়া হইছে।

যেমনঃ আপনাকে লোকাল আইএসপি নিম্নোক্ত আইপি টি দিয়েছে –

ipv4 configure windows

IP: 58.97.183.14

Subnet Mask: 255.255.255.248

Default Gateway: 58.97.183.13

my ip search google

আপনাকে যদি রিয়েল আইপি দিয়ে তাহাকে তাহলে 58.97.183.14 এটিই আপনার পাব্লিক আইপি এড্রেস হিসেবে দেখাবে।

২য় ধাপঃ টরেন্ট পোর্ট ওপেন কিনা চেক করুন

আপনি পুরোপুরি রিয়েল আইপির সুবিধা পাচ্ছেন কিনা তা চেক করার জন্য প্রথমে আপনার uTorrent সফটওয়ারটি ওপেন করুন। তারপর নিম্নোক্ত জিনিস গুলো ফলো করুন –

  • uTorrent সফটওয়ারটি ওপেন করে কিবোর্ড থেকে CTRL + G প্রেস করুন। নতুন একটি উইন্ডো ওপেন হবে।

utorrent port

  • নতুন উইন্ডোতে একটি পোর্ট নাম্বার দেখতে পাবেন। সেটি কপি করুন।
  • এবার canyouseeme.org এই ওয়েবসাইটে যান। আপনার টরেন্ট পোর্ট টি এখানে টাইপ করুন এবং Check Port এ ক্লিক করুন। যদি Success দেখায়, তাহলে আপনি নিশ্চিত ভাবেই রিয়েল আইপি ব্যবহার করছেন এবং এর সুবিধাও পাচ্ছেন।

canyouseeme port check

শেষ কথাঃ

আপনি ডিভেলপার হয়ে থাকলে আপনার ওয়েবসাইট বা অ্যাপটি আপনার পিসিতে হোস্ট করে দেখতে পারেন আপনার আইপি দিয়ে এক্সেস করা যায় কিনা। আর সাধারণ ব্যবহারকারীদের রিয়েল আইপি জানার জন্য উপরের ধাপগুলোই যথেষ্ট। যদি আর্টিকেলটি ভালো লাগে শেয়ার করুন এবং কমেন্ট করুন।